আমরা লাইভে English বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১১, ২০২২

চীন থেকে এসেছে সর্বোচ্চ এফডিআই প্রস্তাব: বিডা

৭৭০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগের জন্য রেজিস্ট্রেশন হয়েছে চীন থেকে। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ কোরিয়ার আছে ১৬১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

bida

বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (বিডা) নির্বাহী চেয়ারম্যান মোঃ সিরাজুল ইসলাম বলেছেন, প্রত্যক্ষ বৈদেশিক বিনিয়োগ (এফডিআই) প্রস্তাব চায়না থেকে সর্বোচ্চ এসেছে। তাদের ধারেকাছেও কেউ নেই। 

সোমবার বিডা এবং বাংলাদেশ চায়না চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (বিসিসিসিআই) মধ্যে এক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। সমঝোতার আওতায় বিদেশি বিনিয়োগ বিশেষ করে চীনা বিনিয়োগ বিকাশে এক সঙ্গে কাজ করবে এ দুটি সংস্থা।

মোঃ সিরাজুল ইসলাম বলেন, '২০২১ ও ২০২২ সালে প্রত্যক্ষ বৈদেশিক বিনিয়োগের (এফডিআই) জন্য বিডাতে যে রেজিস্ট্রেশন হয়েছে যেখানে সবার প্রথম চীন। তাদের ধারেকাছেও কেউ নেই। ৭৭০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগের জন্য রেজিস্ট্রেশন হয়েছে চীন থেকে। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ কোরিয়ার আছে ১৬১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। আমরা আশা করতে পারি, চায়না থেকে বড় ধরনের বিনিয়োগ আসবে।'

তিনি বলেন, 'সম্প্রতি চায়না থেকে একটি প্রতিনিধি দল স্বাস্থ্যখাতে বিনিয়োগের জন্য আমাদের সঙ্গে আলোচনা করেছে।'

তবে বর্তমানে চীন থেকে বেসরকারি বিনিয়োগ প্রস্তাব সবচেয়ে বেশি হলেও এ নিয়ে সন্তুষ্ট নন মোঃ সিরাজুল ইসলাম। তিনি বলেন, সরকারিভাবে চীন বাংলাদেশের উন্নয়নের অন্যতম বড় অংশীদার, আমাদের অনেক সরকারি প্রকল্পে চীন সরাসরি কাজ করে আসছে। চীন থেকে আমাদের সরকারি অনেক বিনিয়োগ আসলেও, সেই তুলনায় বেসরকারি খাতে চীনা বিনিয়োগ অনেক কম। 

মোঃ সিরাজুল ইসলাম বলেন, 'গত ১০ বছরে বাংলাদেশে বিনিয়োগের পরিবেশ যে উন্নত হয়েছে এগুলো আমাদের বিদেশিদের জানাতে হবে। বিদেশিরা যদি না জানে তারা কিন্তু বিনিয়োগে আসবে না। আমাদের অবস্থা এমন হয় নি, আমরা কাউকে না বললে তারা এমনিতেই বিনিয়োগ করতে আসবে।'

তিনি বলেন, 'আমরা দেশের বিনিয়োগ পরিবেশ সম্পর্কে বিদেশিদের কাছে বিভিন্নভাবে তুলে ধরছি। আমরা ইন্টারন্যাশনাল ইনভেস্টমেন্ট সামিট- ২০২১ করেছি। আমাদের দেশের বিনিয়োগের সুযোগগুলো তুলে ধরতে পারলে চায়না সহ অন্যান্য দেশের বেশি বিনিয়োগ আসবে।'

গত ৯ জুন প্রকাশিত ইউনাইটেড নেশনস কনফারেন্স অন ট্রেড অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (আঙ্কটাড)-এর রিপোর্ট নিয়ে বেশি উচ্ছ্বসিত  হওয়ার প্রয়োজন নেই বলে মন্তব্য করেছেন মোঃ সিরাজুল ইসলাম। তিনি বলেন, 'দেশে প্রত্যক্ষ বৈদেশিক বিনিয়োগের (এফডিআই) ১৩ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জিত হয়েছে। আমি এতে উচ্ছ্বাস করার মতো কিছু দেখি না। কারণ ইয়ার অন ইয়ার এফডিআই সারা দুনিয়ার মধ্যে বেড়েছে ৪৩ শতাংশ আর আমাদের বেড়েছে ১৩ শতাংশ।'

তিনি বলেন, '২০২৫ সালে জিডিপির ৩ শতাংশ এফডিআই আনার টার্গেট আমাদের। এটা এখন এক শতাংশের নিচে আছে।'

বিসিসিআইয়ের যুগ্ম মহাসচিব আল মামুন মৃধা বলেন, বর্তমানে দেশে চীনা বিনিয়োগ বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিসিসিসিআইয়ের ৭০০ এর বেশি সদস্য কাজ করে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, বিডার সহায়তায় চায়নাতে আমরা একটি ইনভেস্টমেন্ট সামিট করতে চাই।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন বিডার নির্বাহী সদস্য অভিজিৎ চৌধুরী।