আমরা লাইভে English বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১১, ২০২২

অগ্নিপথ বাহিনী নিয়ে উত্তপ্ত ভারত, নিয়ম পরিবর্তনের ঘোষণা সরকারের

670918_132

বিহার থেকে গুরুগ্রাম- অগ্নিপথ-বিক্ষোভ ক্রমশ ছড়িয়ে পড়ছে ভারতজুড়ে। এই পরিস্থিতিতে ওই প্রকল্পে নিয়োগের ক্ষেত্রে বয়সের ঊর্ধ্বসীমা বাড়াল ভারত সরকার। আবেদনের বয়স ২১ থেকে বাড়িয়ে ২৩ করা হয়েছে।

ভারত সরকার এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, গত দু’বছরে সেনাবাহিনীতে নিয়োগ করা সম্ভব হয়নি। এই বিষয়টি সম্পর্কে সরকার যথেষ্ট সচেতন। তাই সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে, ২০২২ সালে প্রস্তাবিত অগ্নিপথ প্রকল্পে নিয়োগের ক্ষেত্রে এককালীন ছাড় দেয়া হবে। নিয়োগের ক্ষেত্রে বয়সের ঊর্ধ্বসীমা ২৩ করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, এর আগে ভারত সরকার ১৭ বছর থেকে ২১ বছর পর্যন্ত যুবক-যুবতীদের সামরিক বাহিনীতে চার বছরের চুক্তিতে নিয়োগ করার ঘোষণা করে। ভারত সরকার এই প্রকল্পের নাম দেয় অগ্নিপথ।

চুক্তির ভিত্তিতে সামরিক বাহিনীতে নিয়োগের বিরুদ্ধে বিহারসহ ভারতের একাধিক জায়গায় বিক্ষোভ শুরু হয়। বিহারে বিক্ষোভ চলাকালীন বিজেপি কার্যালয়ে আগুনও ধরে দেয়া হয়। এ ছাড়া এক বিজেপি বিধায়কের গাড়ি লক্ষ্য করে ইট ছোড়া হয় বলে অভিযোগ। ছাপরায় একটি ট্রেনে আগুন লাগিয়ে দেয়া হয়।

এই পরিস্থিতিতে ভারত সরকার কিছুটা বাধ্য হয়েই নিয়ম শিথিল করল। উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার অগ্নিপথ প্রকল্পের ঘোষণা করেন ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। ওই প্রকল্পে ১৭-২১ বছরের তরুণ-তরুণীরা চার বছরের জন্য মাসিক ৩০-৪৫ হাজার রুপির চুক্তির ভিত্তিতে সশস্ত্র বাহিনীর তিন শাখায় (স্থল, নৌ এবং বিমান) যোগ দিতে পারবেন। তাদের বলা হবে ‘অগ্নিবীর’।

সামরিক বাহিনীর শূন্যপদ ও যোগ্যতার ভিত্তিতে চতুর্থ বছরের শেষে সেই ব্যাচের সর্বাধিক ২৫ শতাংশ অগ্নিবীরকে সেনায় অন্তর্ভুক্ত করা হবে। বাকিদের ১১-১২ লক্ষ রুপি নগদে দিয়ে পাঠানো হবে অবসরে। থাকবে না কোনো পেনশন।