আমরা লাইভে English সোমবার, মে ১০, ২০২১

ভারতের টুইটার অধিকর্তার পদত্যাগ, নেপথ্যে কি কৃষক আন্দোলন বিতর্ক?

1612704463_tweet

টুইটারের ভারতীয় শাখার নীতি নির্ধারক অধিকর্তার দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়ালেন মহিমা কল। কৃষক আন্দোলন নিয়ে ভারত সরকারের সঙ্গে টুইটারের সম্পর্ক যখন ক্রমশই অবনতির পথে, তখনই সামনে এল এই খবর। ভারতে টুইটারের নীতি নির্ধারণের বিষয়টি দেখাশোনা করছিলেন মহিমা। গত ছ’বছর ধরে তিনি এই দায়িত্বে। তবে এ বছর জানুয়ারি মাসে হঠাৎই সেই দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়ানোর ইচ্ছে প্রকাশ করেন তিনি। জানান, সম্পূর্ণ ব্যাক্তিগত কারণেই কাজ থেকে কিছুদিনের জন্য বিশ্রাম চান। শনিবার তাঁর পদত্যাগের খবর নিশ্চিত করল টুইটার। টুইটারের এক পদস্থ কর্তাও জানিয়েছেন, ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়েই কাজ থেকে নিষ্কৃতি চেয়েছেন মহিমা। যদিও পর্যবেক্ষকদের মতে, ভারত সরকারের সঙ্গে টুইটারের মনোমালিন্যের মধ্যেই ভারতীয় অধিকর্তার পদত্যাগ বেশ তাৎপর্যপূর্ণ।

যদিও এ নিয়ে টুইটার কিছু জানায়নি। বরং টুইটার সূত্রে জানানো হয়েছে, ওই ঘটনার সঙ্গে মহিমার পদত্যাগের কোনও সম্পর্ক নেই। মার্চ মাস পর্যন্ত ভারতে টুইটারের নীতি নির্ধারণের বিষয়ে দেখাশোনা করবেন মহিমা কলই।

‘মোদীপ্ল্যানিংফারমারসজেনোসাইড’ অর্থাৎ ‘কৃষকদের হত্যার পরিকল্পনা করছেন মোদী’ হ্যাশট্যাগ নিয়েই টুইটারের সঙ্গে মনোমালিন্যের শুরু কেন্দ্রের। টুইটারকে ওই হ্যাশট্যাগটি সরিয়ে দিতে বলেছিল কেন্দ্রীয় তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রক। সেই সঙ্গে বন্ধ করে দিতে বলা হয়েছিল কৃষক আন্দোলন সমর্থনকারী ২৫০টি টুইটার অ্যাকাউন্টও। সরকারের নির্দেশ মেনে টুইটার ওই অ্যাকাউন্টগুলি প্রথমে বন্ধ করলেও পরে তা আবার চালু করে দেয়। এরই প্রেক্ষিতে টুইটারকে নোটিস পাঠায় কেন্দ্র। জানায় টুইটারের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করা হবে।