আমরা লাইভে English বুধবার, মে ১৯, ২০২১

আলিবাবাকে ২৭৫ কোটি ডলার জরিমানা চীনের

download_22

বাজারে একচেটিয়া আধিপত্য তৈরি করার অভিযোগে আলিবাবা গ্রুপকে ২৭৫ কোটি ডলার জরিমানা করেছে চীনের নীতিনির্ধারণী কর্তৃপক্ষ।

আজ শনিবার আলজাজিরার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, চীনে এ ধরনের জরিমানার ক্ষেত্রে এটাই সর্বোচ্চ।

যদিও টেকজায়ান্ট আলিবাবার জন্য এই অর্থের পরিমাণ তেমন বেশি না। ২০১৯ সালে আলিবাবা যে পরিমাণ মুনাফা করেছে এই জরিমানা তার মাত্র চার শতাংশের সমপরিমাণ।

গত কয়েকমাসে অভ্যন্তরীণ প্রযুক্তিগত সংস্থাগুলোতে নজিরবিহীন নিয়ন্ত্রণ আনতে অভিযান শুরু করেছে চীন। এরপরই আলিবাবাকে জরিমানা করা হয়। এতে ইতোমধ্যেই প্রতিষ্ঠানটির শেয়ারের দাম কিছুটা কমেছে।

গত বছর অক্টোবরের শেষ দিকে চীনের নীতিনির্ধারণী ব্যবস্থার কড়া সমালোচনা করেছিলেন আলিবাবার প্রতিষ্ঠাতা ধনকুবের জ্যাক মা। এরপর থেকেই তার প্রতিষ্ঠান নিয়ে জোর তদন্ত শুরু হয়।

গত বছর ডিসেম্বরে চীনের বাজার নিয়ন্ত্রণ প্রশাসন (এসএএমআর) আলিবাবার বিরুদ্ধে নীতিমালা ভঙ্গের অভিযোগে তদন্ত শুরু করে। এর আগে আলিবাবার সহযোগী প্রতিষ্ঠান অ্যান্ট গ্রুপের ৩৭ বিলিয়ন ডলারের আইপিও পরিকল্পনা স্থগিত করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

আজ এসএএমআর জানিয়েছে, আলিবাবা তার ব্যবসায়ীদের অন্য ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার বন্ধ করে দিয়ে ২০১৫ সাল থেকে ‘একচেটিয়া বাজার আধিপত্য’ কায়েম করেছে বলে তদন্তে প্রমাণ পাওয়া গেছে।

এসএএমআর আরও জানায়, আলিবাবার এ ধরনের কর্মকাণ্ড পণ্যের অবাধ বিপণন বাধাগ্রস্ত করে। আলিবাবা অন্যদের ব্যবসায়িক স্বার্থ লঙ্ঘন করে চীনের একচেটিয়া বাজার বিরোধী আইন লঙ্ঘন করছে।

বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মটিকে অভ্যন্তরীণ নীতিমালা জোরদার ও ভোক্তাদের অধিকার রক্ষার ক্ষেত্রে ‘পুরোপুরি সংশোধন’ আনার নির্দেশ দিয়েছে এসএএমআর।

আলিবাবা জানিয়েছে, এই জরিমানার সিদ্ধান্ত নিয়ে আলোচনা করতে তারা আগামী সোমবার একটি বৈঠক ডাকবে।