আমরা লাইভে English রবিবার, জুন ২৬, ২০২২

শিরিন হত্যার প্রতিবাদে ইসরাইলি জোট সরকার ছাড়লেন আরব এমপি

Sdzfghjkfcgjk,.

ইসরাইলের বর্তমান জোট সরকারের ভরিষ্যৎ অনিশ্চতায় ফেলে দিয়েছেন এক আরব নারী এমপি।

ফিলিস্তিনে কট্টর ডানপন্থিদের উগ্রবাদী আচরণের প্রতিবাদে এবং সম্প্রতি ফিলিস্তিনের পশ্চিমতীরে আলজাজিরার প্রখ্যাত সাংবাদিক শিরিন আবু আকলেহকে গুলি করে হত্যার প্রতিবাদে ইসরাইলি পার্লামেন্টে নেসেটের বামপন্থি দল মেরেটজ পার্টির আরব নারী সদস্য গাইদা রিনাবি জোয়াবি জোট সরকার থেকে নিজেকে প্রত্যাহার করে নিয়েছেন।খবর বিবিসির।

এর ফলে ১২০ আসনের ইসরাইলি পার্লামেন্টে প্রধানমন্ত্রী নাফতালি ব্যানেটের ক্ষমাসীন দল ন্যাশনালিস্ট পার্টি বেকায়দায় পড়ে গেছে। গাইদা রিনাবি জোয়াবি জোট সরকার থেকে সরে যাওয়ায় বর্তমানে ইসরাইলি পার্লামেন্টে ক্ষমাসীন দলের আসন কমে ৫৯টিতে দাঁড়িয়েছে।

পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতা ধরে রাখতে এবং সরকারের পতন ঠেকাতে হলে কমপক্ষে ৬০ আসন নিশ্চিত করতে হবে ক্ষমতাসীন ন্যাশনালিস্ট পার্টিকে।

এর আগে প্রধানমন্ত্রীর নিজের দল ডানপন্থি আয়ামিনা পার্টির আরেক এমপি গত সপ্তাহে পদত্যাগ করেন। তখন নেসেটে তাদের আসন ৬১ থেকে কমে ৬০ এ নেমে আসে।

গাইদা রিনাবি জোয়াবি বলেন, ইসরাইলের বর্তমান সরকার সহ্যের সব সীমা অতিক্রম করে ফেলেছে। তারা ফিলিস্তিনে আমার স্বজাতির ওপর নির্মম ও বর্বর নির্যাতন চালিয়ে যাচ্ছে।

উল্লেখ্য, আরব এমপিদের সমর্থনে গঠন করা বর্তমান ইসরাইলি সরকারের বয়স এক বছরেরও কম। ১৯৪৮ সালে রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার পর এবারই প্রথম আরব এমপিদের নিয়ে ইহুদিবাদী দেশটির সরকার গঠন করা হয়েছে। ইসরাইলি পার্লামেন্টের ২০ ভাগ সদস্য আরব ইসরাইলি।