আমরা লাইভে English রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২১

৯১ বছরে থেমে গেল মিলখার দৌড়

160499-ezhmvighdm-1624043073

৪০০ মিটার দৌড়ে কমনওয়েলথ গেমসে সোনা জিতেছেন। সোনা জিতেছেন এশিয়ান গেমসেও। অংশ নিয়েছেন তিনটি অলিম্পিক গেমসে। ১৯৬০ অলিম্পিকে এই ৪০০ মিটার দৌড়েই হয়েছিলেন চতুর্থ। দৌড়ের কারণে যিনি এত বিখ্যাত সেই মিলখা সিংয়ের জীবনের দৌড়টা থেমে গেল আজ।  চণ্ডিগড়ে ৯১ বছর বয়সে পৃথিবীর মায়া কাটিয়ে না ফেরার দেশে পাড়ি জমিয়েছেন ভারতের সাবেক এই স্প্রিন্টার।

'দ্য ফ্লাইং শিখ' নামে পরিচিত মিলখা সিং গত মাসের ২০ তারিখে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। এই করোনার কাছেই এ সপ্তাহের শুরুতে তিনি হারিয়েছেন স্ত্রী নির্মলা কাউরকে। করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর গত ২৪ মে ১৯৫৮ সালের কমনওয়েলথ গেমসের চ্যাম্পিয়ন ও ১৯৬০ রোম অলিম্পিকে অংশ নেওয়া মিলখা সিং মেহালিতে একটি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। ৩০ মে তাঁকে হাসপাতাল থেকে ছেড়েও দেওয়া হয়। গত বৃহস্পতিবার তিনি করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভও হয়েছিলেন। তবে অক্সিজেন লেভেল কমে যাওয়ায় তাঁকে আবার হাসপাতালে যেতে হয়েছিল। সেখান থেকে আর ফিরে আসতে পারেননি মিলখা সিং। জিভ মিলখা সিং আজ তাঁর বাবার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন।

এখন পাকিস্তানের অংশ গোবিন্দপুরাতে জন্ম নেওয়া মিলখা সিং প্রথম ভারতীয় অ্যাথেলট হিসেবে ১৯৫৮ সালে কমনওয়েলথ গেমসের সোনা জেতেন। সেবার কার্ডিফে কমনওয়েলথ গেমসের ৪০০ মিটার দৌড়ে তিনি হারিয়েছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার ম্যালকম স্পেনসকে। সোনা জিততে তিনি দৌড় শেষ করেছিলেন ৪৬.৬ সেকেন্ডে।

মিলখা সিং এশিয়ান গেমসে চারটি সোনা জিতেছেন। ১৯৫৮ সালে ২০০ ও ৪০০ মিটার দৌড়ে সোনা জেতেন তিনি। ১৯৬২ সালের এশিয়ান গেমসে জেতেন ৪০০ মিটার ও ৪ গুণিতক ৪০০ মিটার রিলেতে। তবে মিলখা সিংয়ের ক্যারিয়ারের সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য ঘটনা ছিল রোমে ১৯৬০ অলিম্পিকে চতুর্থ হওয়াটাই।

ছেলে জিভ মিলখা ছাড়াও তিনি মেয়ে মোনা সিং, আলিজা গ্রোভার ও সোনিয়া সনওঢাকার জনক ছিলেন মিলখা সিং। ছেলে জিভ অবশ্য ক্যারিয়ার গড়েছেন গলফে। ১৪ বারের আন্তর্জাতিক ট্রফি জেতা জিভ বাবার মতোই পদ্ম শ্রী পুরস্কার জিতেছেন।