আমরা লাইভে English বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ১৫, ২০২১

ঢাকা-দিল্লি ভ্যাকসিনের তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল শুরু করতে যাচ্ছে

covid-19_vaccine (1)

ভারতে কোভিড-১৯ প্রার্থী টিকার পরীক্ষামূলক শুরু হওয়া মাত্রই তা বাংলাদেশেও শুরু করা হবে। এবিষয়ে দুই দেশের মধ্যে পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে নীতিগত ঐক্যমত্য হয়েছে। 

গত মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর তার সরকারের পক্ষে বাংলাদেশকে এ প্রস্তাব দেন। প্রার্থী ভ্যাকসিনের সুরক্ষা এবং কার্যকারিতা পরীক্ষার সর্বশেষ ধাপ হচ্ছে তৃতীয় পর্যায়ের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল। ভারতে এ প্রক্রিয়া শুরু হওয়া মাত্রই তা বাংলাদেশে চালু করতে ভারত প্রস্তুত বলে জানান তিনি। 

এ প্রস্তাবে নীতিগত সম্মতি দিয়েছে ঢাকা। ভারতীয় হাই কমিশনের একটি সূত্রের বরাতে এসম্পর্কে জানায় বার্তা সংস্থা ইউএনবি। 

ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, ''একই ধরনের ট্রায়াল দুই দেশের স্বাস্থ্য খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থার মধ্যে সহযোগীতার সম্পর্ক শক্তিশালী করবে এবং এতে করে ভবিষ্যতে যৌথভাবে ভ্যাকসিন উৎপাদন এবং বণ্টন করাও সহজ হবে।'' যৌথভাবে কোভিড টিকা উৎপাদনে ভারত সর্বোচ্চ সহযোগীতা নিশ্চিত করবে, বলেও জানান জয়শঙ্কর।

হাই কমিশন সূত্র জানায়, আজ দুই দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে এস জয়শঙ্কর বলেন, ''বাংলাদেশের সঙ্গে আমরা ভ্যাকসিন উন্নয়নের নানা পর্যায়ে সহযোগীতার আশা করছি। মানবদেহে চূড়ান্ত পর্যায়ে প্রার্থী ভ্যাকসিনের পরীক্ষা এবং পরবর্তীতে তা ব্যবহার উপযোগী প্রমাণিত হওয়া মাত্র যৌথ উৎপাদন ও বিতরণে সহযোগীতা দিতে চায় ভারত।'' 

এক্ষেত্রে বাংলাদেশকে অন্য মিত্র দেশের তুলনায় বেশি অগ্রাধিকার দেওয়া হবে, বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

বার্তা সংস্থা ইউএনবি'কে ভারতীয় দূতাবাসের এক শীর্ষ কর্মকর্তা বলেন, আগামী নভেম্বরে ভারতীয় স্বরাষ্ট্র সচিব ঢাকা সফরে এসে বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্র সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দীনের সঙ্গে এক বৈঠকে অংশ নেবেন।

উভয়পক্ষের মধ্যে সীমান্ত ব্যবস্থাপনা, দূতাবাস সম্পর্কিত বিষয়াদি এবং অন্যান্য দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের গুরুত্বপূর্ণ বিষয়াদি নিয়ে আলোচনা হবে। 

এছাড়া, সার্কভুক্ত দেশগুলোর জন্য গঠিত ভ্যাকসিন তহবিলে বাংলাদেশের দেওয়া অনুদানের প্রশংসা করেছেন সফররত ভারতীয় মন্ত্রী।