আমরা লাইভে English সোমবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০২১

প্রথমবার প্রকাশ্যে আদালতে তোলা হলো সুচিকে

rk_aungsansuukyi_240521

ক্ষমতাচ্যুত করে গ্রেপ্তারের পর প্রথমবারের মতো সোমবার জনসমক্ষে আদালতে তোলা হয় মিয়ানমারে গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত নেত্রী অং সান সুচিকে। এদিন আদালতে হাজির করা হলে তিনি সুস্থ আছেন বলে মনে হয়েছে। নিজের আইনজীবীদের সঙ্গে ৩০ মিনিট কথা বলার সুযোগ পেয়েছেন। তার আইনজীবী দলের প্রধান খিন মুয়াং জওয়া বলেছেন, বন্দিদশায় কোন সংবাদপত্র পড়তে দেয়া হয়নি সুচিকে। তবে বাইরে কি ঘটছে তার অল্প কিছু তিনি অবহিত ছিলেন। তিনি দেশবাসীর সুস্বাস্থ্য কামনা করেছেন। তবে সামরিক জান্তা তার দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি (এনএলডি) খুব শিগগিরই নিষিদ্ধ করতে পারে বলে তিনি আভাস দিয়েছেন। আইনজীবীদের সুচি বলেছেন, যতদিন মানুষ আমাদের সমর্থন করবে আমাদের দল ততদিন টিকে থাকবে।

এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স ও এএফপি। এতে আরো বলা হয, গত ১লা ফেব্রুয়ারিতে ৭৫ বছর বয়সী এই নেত্রীকে ক্ষমতাচ্যুত করা হয়। এরপর তাকে সহ কমপক্ষে ৪০০০ মানুষকে গ্রেপ্তার করেছে দেশটির সামরিক জান্তা। তারপর থেকে প্রতিবাদ বিক্ষোভে উত্থাল হয়ে ওঠে মিয়ানমার। বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে প্রাণঘাতী শক্তি ব্যবহার করে সামরিক জান্তা। তাতে কমপক্ষে ৮০০ মানুষ নিহত হয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত বছর নভেম্বরে অনুষ্ঠিত জাতীয় নির্বাচনে ভূমিধস বিজয় পায় সুচির দল এনএলডি। কিন্তু সামরিক বাহিনীর অভিযোগ ওই নির্বাচনে ব্যাপক জালিয়াতি হয়েছে, যদিও তারা এর স্বপক্ষে কোনো প্রমাণ দিতে পারেনি। ওই সময়ের নির্বাচন কমিশনও নির্বাচনে জালিয়াতির অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছিল। কিন্তু সামরিক জান্তা নিয়োজিত নির্বাচন কমিশন এখন বলছে নির্বাচনে প্রতারণার অভিযোগ থাকায় এনএলডি দলকে বিলুপ্ত ঘোষণা করা হতে পারে। একই সঙ্গে এর সঙ্গে যুক্ত ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার হুমকি দিয়েছে সেনা নিয়োজিত নির্বাচন কমিশনার।

সুচির আইনজীবী বলেছেন, সুচি তাকে জানিয়েছেন যে, আটক অবস্থায় কিছু বিষয়ে সুচির মতামত জানতে চায় পুলিশ। সে সময়ই তিনি বাইরের পরিবেশ সম্পর্কে কিছুটা তথ্য পান। যেহেতু তিনি পুরো বিষয় সম্পর্কে অবহিত ছিলেন না, তাই তিনি পুলিশের ওইসব বিষয়ে কোনো মতামত দেননি। সোমবার ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট উইন মিন্টের সঙ্গেও কথা বলেছেন আইনজীবীরা। আইনজীবী মিন মিন সোয়ে বলেছেন, এই মামলার পরবর্তী শুনানি হওয়ার কথা আগামী ৭ই জুন। তিনি ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট উইন মিন্টের সঙ্গে সাক্ষাত করেছেন। ইন্টারন্যাশনাল ক্রাইসিস গ্রুপের মিয়ানমার বিষয়ক সিনিয়র উপদেষ্টা রিচার্ড হোরসে বলেছেন, এতদিন পরে কেন তাদেরকে এখন সাক্ষাৎ করতে দেয়া হলো, তা বলা খুবই কঠিন।

সোমবার শুনানি শেষে আইনজীবীরা যখন ন্যাপিডতে আদালত ত্যাগ করছিলেন তখন পুলিশ এনএলডির আইনি প্রতিনিধিত্বকারী ব্যক্তিত্ব মিও অং’কে গ্রেপ্তার করেছে।