আমরা লাইভে English সোমবার, মে ১০, ২০২১

ভারতীয় সেনাদের গতিবিধির উপর নজর রাখতে নেপালি বাহিনীকে কড়া নির্দেশ

REPORT-2-ENG-03-09-2020-Nepal

চীনের সঙ্গে ভারতের সীমান্তে ‍উত্তেজনা বেড়ে যাওয়ার প্রেক্ষাপটে নেপাল সরকার তার বাহিনীকে লিপুলেখ এলাকায় ভারতীয় সেনাদের তৎপরতার উপর কড়া নজর রাখার নির্দেশ দিয়েছে।

ভারত, নেপাল ও চীনের ত্রিসংযোগে উত্তরখন্ডের কালাপানি উপত্যকার প্রান্তে লিপুলেখ অবস্থিত। গত সপ্তাহে নেপালের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় থেকে জারি করা এক আদেশনামায় নেপালের আর্মড পুলিশ ফোর্স (এনএপিএফ)-কে ওই নির্দেশ দেয়া হয়।

লিপুলেখ এলাকায় এনএপিএফের ৪৪ ব্যাটালিয়ন মোতায়েন রয়েছে। তাদেরকে সীমান্ত এলাকায় দীর্ঘ টহল দিতে বলা হয়। ভারত ও চীনের মধ্যে সংঘাতের আশংকা করছে নেপাল। 

লিপুলখ অঞ্চলে চীনও সেনা সংখ্যা বাড়িয়েছে। ত্রিসংযোগের কাছে ১৫০ লাইট কম্বাইন্ড আর্মস ব্রিগেড মোতায়েন করা হয়েছে। গত মাসে বিগ্রেডটি এখানে আসে। সীমান্ত থেকে মাত্র ১০ কিলোমিটার দূরে পালা এলাকাতেও নতুন করে চীনা সৈন্য পাঠানো হয়েছে। 

গত জুলাইয়ে পালা এলাকায় চীন ১,০০০ সেনা মোতায়েন করে এবং সেখানে একটি স্থায়ী ঘাঁটি নির্মাণ করে। সূত্র জানায়, মাত্র দুই সপ্তাহ আগে সেখানে আরো ২,০০০ সৈন্য পাঠানো হয়েছে।

লিপুলেখ এলাকায় ভারত একটি সড়ক নির্মাণ করলে দেশটির সঙ্গে নেপালের বিরোধ দেখা দেয়। নেপাল এই অঞ্চলসহ ভারতের দখলে থাকা আরো তিনটি এলাকা নিজের বলে দাবি করে। এলাকাগুলো নিজের মানচিত্রে যুক্ত করে সম্প্রতি সংবিধানও পরিবর্তন করেছে কাঠমান্ডু।

সীমান্তের বেশ কয়েক জায়গায় গত মে মাস থেকে ভারত ও চীনের মধ্যে উত্তেজনা চলছে। 

এলএসির তিনটি সেক্টর পশ্চিম (লাদাখ), মধ্য (উত্তরখন্ড ও হিমাচল) ও পূর্বে (সিকিম, অরুনাচল) —সেনা, কামান ও সাঁজোয়া যান মোতায়েন করেছে চীন।

চীনকে প্রতিহত করতে সীমান্তে ভারতও শক্তি বৃদ্ধি করেছে।