আমরা লাইভে English বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ১৫, ২০২১

সেনাবাহিনীর শত্রু মানে পাকিস্তানের শত্রু: প্রধানমন্ত্রী ইমরান

REPORT-3-ENG-03-10-2020-Pak

স্পষ্টত সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের প্রতি ইংগিত করে পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন যে যারাই সেনাবাহিনীর প্রতি শত্রুতামূলক মনোভাব পোষণ করে তারাই পাকিস্তানের শত্রু।

শুক্রবার ক্ষমতাসীন দল পিটিআই-এর এক বৈঠকে তিনি এই মন্তব্য করেন। দেশের বিরোধী দলগুলো শিগগিরই সরকার বিরোধী আন্দোলন শুরু করার ঘোষণা দেয়ার পরিপ্রেক্ষিতে শুক্রবার এই বৈঠকের আয়োজন করা হয়।

সরকারকে হটাতে পাকিস্তানের পিপিপি, পিএমএল-এন ও জেইউআই-এফ-এর মতো বড় বিরোধী দলগুলো নতুন জোট গঠন করেছে। যার নাম দেয়া হয়েছে ‘পাকিস্তান ডেমক্রেটিক মুভমেন্ট’(পিডিএম)। 

পিডিএম প্রধানমন্ত্রীর প্রতি পদত্যাগের আহ্বান জানায় এবং সারা দেশে বিক্ষোভ কর্মসূচির ঘোষণা দেয়। ১১ অক্টোবর কোয়েটা থেকে এই কর্মসূচি শুরু হবে।

বৈঠককালে প্রধানমন্ত্রী ইমরান বলেন, সরকার ও সশস্ত্র বাহিনীর মধ্যে কোন বেসামরিক-সামরিক উত্তেজনা নেই। 

তিনি বলেন, সেনাবাহিনীকে নিয়ে বিরোধী দলের সমস্যা আছে কারণ সেনাবাহিনী সবসময় তাদের দুর্নীতি ধরে ফেলেছে। 

শরিফ সেনাবাহিনীকে যে গালিগালাজ করেন তার সমালোচনা করে ইমরান বলেন, ভারতকে খুশি করতে তিনি এসব কথা বলেছেন। নওয়াজ শরিফের মুখ দিয়ে ভারতের কথাই বেরিয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, যারা সশস্ত্র বাহিনীর শত্রু তারা পাকিস্তানের শত্রু। তিনি ভারতীয় ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে গোটা দেশকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানান। ইমরান বলেন যে, সরকার তার প্রতিষ্ঠানগুলোকে রক্ষা করবে। 

গত বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে পিএমএল-এন নেতা শরিফ সেনাবাহিনী ও সরকারের তীব্র সমালোচনা করে বলেন যে তিনি আর চুপ থাকবেন না।

তিনি ভিডিও লিংকের মাধ্যমে লন্ডন থেকে পিএমএল-এন কেন্দ্রিয় নির্বাহী কমিটির সঙ্গে বৈঠক করেন।

শরিফ বলেন, দেশের বর্তমান অবস্থার জন্য যদিও প্রধানমন্ত্রীকে দায়ি করতে হয়, কিন্তু আসল দায়ি হলো যারা তাকে ক্ষমতায় এনেছে।

শরিফ বলেন, তাদেরকে এর জন্য জবাব দিতে হবে।