আমরা লাইভে English বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ২২, ২০২০

ট্রাম্পের টুইট সত্ত্বেও বড়দিনের আগে আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার অনিশ্চিত

GettyImages-1169214247-TRUMP-IRAN-SANCTIONS
ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তার নিরাপত্তা উপদেষ্টা রবার্ট ওব্রেইন

আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার প্রশ্নে প্রেসিডেন্টের শীর্ষ নিরাপত্তা কর্মকর্তা ও শীর্ষ উর্দিধারী কর্মকর্তার মধ্যে যোগাযোগ বিচ্ছিন্নতা দূর করতে জয়েন্ট চিফস অব স্টাফ কমিটির চেয়ারম্যান জেনারেল মার্ক মিলে কিছুই করেননি বলে শুক্রবার তাকে এক হাত নিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা রবার্ট ওব্রেইন।

৭ অক্টোবর এই বিরোধের সূত্রপাত, যখন ওব্রেইন বলেন যে তিনি আগামী বছর শুরু হওয়ার আগেই সৈন্য সংখ্যা ২,৫০০-তে নামিয়ে আনার পরিকল্পনা সমর্থন করেন। এর একদিন পরেই এই মন্তব্য উড়িয়ে দিয়ে মিলে বলেন, ওব্রেইন যে সংখ্যা বলেছেন তা চলমান আলোচনার সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ নয়।

১২ অক্টোবর এনপিআর-কে দেয়া সক্ষাতকারে মিলে বলেন, ওব্রেইনসহ যে কেউ যেকোন সংখ্যা কল্পনা করতে পারেন। তবে আমি কল্পনা করতে চাই না। আমি পরিস্থিতি কঠোরভাবে মূল্যায়ন করতে চাই।

ওব্রেইন শুক্রবার অসপিন ইন্সটিটিউটের এক অনুষ্ঠানে পাল্টা জবাব দিয়ে বলেন, ২,৫০০ সৈন্য সীমার উপরেই জোর দেয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, কেউ কেউ বলছে যে এটা সন্দেহ। আমি আপনাকে নিশ্চিয়তা দিয়ে বলছি, মার্কিন প্রেসিডেন্টের এটাই পরিকল্পনা। এটা কমান্ডার-ইন-চিফের আদেশ, কোন সন্দেহ নয়। 

মিলে ও তার মধ্যে বিচ্ছিন্নতা তৈরি হয়েছে কিনা এর কোন জবাব দেননি ওব্রেইন।

তিনি বলেন, আমি যখন সেনা সংখ্যা নিয়ে কথা বলি তখন আমি মার্কিন প্রেসিডেন্টের স্টাফ হিসেবে বলি। সন্দেহ করা আমার স্বভাব নয়। আমি সন্দেহ করছি কিনা সেটা কেউ ইচ্ছে মতো ব্যাখ্যা করতে পারে। আমি আগে কখনো সন্দেহ করিনি, এখনও করছি না।

আমি যখন কথা বলি তখন প্রেসিডেন্টের পক্ষে কথা বলি। আমি মনে করি পেন্টাগন সেটাই করার চেষ্টা চালাচ্ছে। 

তবে নিরাপত্তা উপদেষ্টা ৭ অক্টোবর ট্রাম্পের টুইটকে গুরুত্বহীন করার চেষ্টা চালাননি। সেখানে ট্রাম্প বলেছেন যে বড় দিনের আগে আফগানিস্তান থেকে সব সেনা ফিরে আসবে। এটা একটি সাধারণ কথা। সব প্রেসিডেন্টই বলে থাকেন যে ছুটির আগে সব বাহিনী দেশে ফিরে আসবে।

ওব্রেইন বলেন, এই হেমন্তের আগে সেনা সংখ্যা ৪,৫০০-এ নামিয়ে আনা হবে এবং জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারিতে স্বল্প সংখ্যক আসবে। পরিস্থিতি সুযোগ দিলে আরো আগেই আমরা সবাইকে নিয়ে আসতে চাই, প্রেসিডেন্ট অবশ্য সেই ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। 

পেন্টাগনের কর্মকর্তারা এর আগে বলেছিলেন যে নভেম্বর নাগাদ আফগানিস্তানে ৫,০০০-এর কম সেনা থাকবে। ইরাক থেকেও সেনা কমানো হচ্ছে। ট্রাম্প প্রশাসন আমেরিকার সবচেয়ে দীর্ঘ ১৯-বছরের যুদ্ধের অবসান ঘটাতে চাচ্ছে।