আমরা লাইভে English শনিবার, ফেব্রুয়ারি ০৪, ২০২৩

অর্থ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নিলেন শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী

ranil-wickremesinghe-1200-768x427

শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে দেশটির অর্থ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নিজের হাতে তুলে নিয়েছেন। বুধবার প্রেসিডেন্টের কার্যালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী রনিল দ্বৈত দায়িত্ব পালন করবেন। একই সঙ্গে সংকট কবলিত দেশটির বেলআউট পেতে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) সঙ্গে আলোচনা নেতৃত্ব দেবেন তিনি।

প্রেসিডেন্টের কার্যালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়, ‘প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে আজ সকালে প্রেসিডেন্ট গোটাবায়া রাজাপাকসের কাছে অর্থ, অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা এবং জাতীয় নীতি মন্ত্রী হিসাবে শপথ নিয়েছেন।’

মঙ্গলবার ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বিক্রমাসিংহে জানান তিনি ছয় সপ্তাহের মধ্যে একটি অন্তর্বর্তী বাজেট পেশ করবেন, দুই বছরের জন্য ত্রাণ কর্মসূচিতে তহবিল বরাদ্দ করতে অবকাঠামো প্রকল্পগুলো কমিয়ে ফেলবেন।

দুই কোটি ২০ লাখ জনগোষ্ঠীর দেশ শ্রীলঙ্কা ১৯৪৭ সালে স্বাধীনতা লাভের পর থেকে সবচেয়ে বাজে অর্থনৈতিক সংকটের মুখে পড়েছে। বৈদেশিক মুদ্রা সংকটে আমদানি অচল হয়ে পড়ায় জ্বালানি ও ওষুধের মতো নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীর তীব্র সংকট শুরু হয়েছে।

এই সংকটের জেরে শুরু হওয়া তীব্র রাজনৈতিক অস্থিরতার মধ্যে দুই সপ্তাহ আগে প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নেন রনিল বিক্রমাসিংহে। আগেও তিনি পাঁচবার দেশটির প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন। নতুন দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে প্রধানমন্ত্রী এবং প্রেসিডেন্ট ক্ষমতাসীন ও বিরোধী দলগুলোর নেতাদের নিয়ে মন্ত্রিসভা গঠনের চেষ্টায় রয়েছেন। তবে বহু চেষ্টাতেও নতুন অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব নেওয়ার মতো কাউকেই পাচ্ছিলেন না তারা।

আগের অর্থমন্ত্রী আলি সাবরি এপ্রিলে আইএমএফ এর সঙ্গে আলোচনা শুরু করেন। তবে মে মাসের শুরুতে প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসে মন্ত্রিসভা বিলুপ্ত করলে সরে যান তিনি।