আমরা লাইভে English শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২২

রুশ আগ্রাসন ঠেকাতে পূর্ব ইউরোপে সামরিক শক্তি বাড়াচ্ছে ন্যাটো

Ukraine-Force-c94ebdea0cafd3922aa3f036cb98dd67

ইউক্রেনের সঙ্গে রাশিয়ার চলমান উত্তেজনার মধ্যেই রুশ আগ্রাসন ঠেকাতে পূর্ব ইউরোপে সামরিক শক্তি বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে ন্যাটো। সোমবার ন্যাটো মহাসচিব জিন্স স্টোলটেনবার্গ এ ঘোষণা দিয়েছেন। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্স।

পূর্ব ইউরোপে সামরিক শক্তি বাড়ানোর অংশ হিসেবে এরইমধ্যে অঞ্চলটিতে সামরিক বহর, যুদ্ধজাহাজ ও বোমারু বিমান পাঠিয়েছে ন্যাটো। সংস্থার মহাসচিব জিন্স স্টোলটেনবার্গ এক বিবৃতিতে সামরিক বাহিনী ও যুদ্ধযান পাঠানো দেশগুলোর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন। সব মিত্রকে রক্ষায় প্রয়োজনীয় পদক্ষপ গ্রহণ অব্যাহত রাখার দৃঢ় আশাবাদের কথাও জানিয়েছেন তিনি।

এদিকে রাশিয়া যদি ইউক্রেনে আক্রমণ চালায় তাহলে দেশটির ওপর অভাবনীয় নিষেধাজ্ঞা আরোপের হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে। সোমবার ডেনমার্ক জানিয়েছে, ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) এমন নিষেধাজ্ঞা আরোপে প্রস্তুত রয়েছে, যা রাশিয়া আগে কখনও দেখেনি। ইইউ জোটভুক্ত দেশগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা বলছেন, তারা ঐক্যবদ্ধভাবে মস্কোকে একটি সতর্ক বার্তা পাঠাবেন।

রাশিয়া ইউক্রেনের সীমান্তের কাছে সেনা মোতায়েনের পর থেকেই উত্তেজনা বেড়েছে। পশ্চিমা দুনিয়ার আশঙ্কা, ইউক্রেন আক্রমণের প্রস্তুতি নিচ্ছে মস্কো। তবে রাশিয়া বরাবরই এ ধরনের পরিকল্পনার কথা অস্বীকার করে আসছে।

ব্রাসেলসে নিয়মিত আলোচনার জন্য জড়ো হওয়া ইউরোপীয় মন্ত্রীদের সঙ্গে আলাপকালে এ নিয়ে কথা বলেন লিথুয়ানিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী গ্যাব্রিলিয়াস ল্যান্ডসবার্গিস। তিনি বলেন, ‘রাশিয়ার কৌশল অনুযায়ী আমি নিশ্চিত যে তাদের লক্ষ্যগুলোর মধ্যে একটি হলো পশ্চিমকে বিভক্ত করা। এটি এমন একটি বিজয় যা আমরা রাশিয়ানদের দিতে পারি না।’

ডেনমার্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জেপ্পে কফোড সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘রাশিয়া যদি আবার ইউক্রেন আক্রমণ করে তাহলে আমরা ব্যাপক, আগে কখনও দেখা যায়নি এমন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে প্রতিক্রিয়া জানাতে প্রস্তুত রয়েছি। এতে কোনও সন্দেহ নেই।’