আমরা লাইভে English বুধবার, অক্টোবর ২৭, ২০২১

সৌদি সফরে কাতারের আমির

Saudi-2-768x478

সৌদি সফরে গেছেন কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি। সোমবার জেদ্দার বিমানবন্দরে পৌঁছালে তাকে স্বাগত জানান সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান (এমবিএস)। এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

সফরের অংশ হিসেবে আল সালাম প্যালেসে কাতারি আমিরের সঙ্গে বৈঠকে মিলিত হন যুবরাজ এমবিএস। এ সময় তারা দ্বিপাক্ষিক, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক নানা বিষয় নিয়ে কথা বলেন।

২০১৭ সালের ৫ জুন কথিত সন্ত্রাসবাদে সমর্থনের অভিযোগ এনে কাতারের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করে সৌদি আরব, বাহরাইন, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও মিসর। তবে সৌদি জোটের অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে কাতার। বরং এ অবরোধকে রক্তপাতহীন যুদ্ধ ঘোষণার শামিল বলে মন্তব্য করেন কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ মোহাম্মাদ বিন আব্দুররহমান আলে সানি। তার ভাষায়, সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন কয়েকটি আরব দেশ দোহার বিরুদ্ধে প্রকারান্তরে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে।

কাতারবিরোধী ওই অবরোধ প্রত্যাহারে ১৩ দফা দাবি তুলে ধরেছিল সৌদি জোট। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিল আল জাজিরা টেলিভিশন বন্ধ করে দেওয়া, কাতার থেকে তুরস্কের সামরিক ঘাঁটি প্রত্যাহার এবং মুসলিম ব্রাদারহুডের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করা। তবে সৌদি জোটের দাবি প্রত্যাখ্যান করে উল্টো তুরস্কের দিকে আরও বেশি ঝুঁকে পড়ে কাতার। তুরস্কও কাতারের সমর্থনে এগিয়ে আসে। বলা চলে, তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান একাই সৌদি আরবের কাতারবিরোধী অবরোধ ব্যর্থ করে দেন। এক পর্যায়ে যুক্তরাষ্ট্রের ট্রাম্প প্রশাসনের মধ্যস্থতায় ২০২১ সালের গোড়ার দিকে অবরোধ প্রত্যাহার করে সৌদি জোট। এমন পরিস্থিতিতে কাতারি আমিরের সৌদি সফর এবং এমবিএস-এর সঙ্গে সাক্ষাৎ তাৎপর্যপূর্ণ হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে।